সহজে বিদেশ থেকে সোনালী ব্যাংকে টাকা পাঠানোর নিয়ম

আপনি কি বিদেশ থাকেন? বৈধ পথে সোনালী ব্যাংকে কিভাবে টাকা পাঠানো যায় তা জানতে চাচ্ছেন? এই পোস্টে বিস্তারিত জেনে নিন।

বিদেশ থেকে সোনালী ব্যাংকে টাকা পাঠানোর নিয়ম

যেসকল ব্যাংক সহজে বিদেশ থেকে দেশে টাকা আনার সুযোগ দেয়, তার মধ্যে সোনালী ব্যাংক একটি। আপনি খুব সহজে বিদেশ থেকে সোনালী ব্যাংকে টাকা পাঠানোর নিয়ম অনুসরণ করে দেশে টাকা পাঠাতে পারবেন আপনার প্রিয়জনের নিকট।

সহজে বিদেশ থেকে সোনালী ব্যাংকে টাকা পাঠানোর নিয়ম বা সোনালী ব্যাংকে রেমিটেন্স পাঠানোর নিয়ম আপনার সুবিধার্থে নিচে আলোচনায় বিস্তারিত ভাবে আনা হলো। এছাড়া এর জন্য কি কি লাগবে, খরচ এবং সুবিধা গুলোও নিচে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এখন আসুন তা দেখে নেয়া যাক।

সোনালী ব্যাংকে টাকা পাঠানোর সুবিধা

আপনি যদি বিদেশ থেকে সোনালী ব্যাংকে টাকা পাঠান তবে আপনি কিছু সুবিধা পাবেন। সুবিধা গুলো কি কি আসুন তা দেখে নেয়া যাক।

  • সোনালী ব্যাংক আপনাকে বৈধ পথে রেমিটেন্স আনার সুবিধা দিচ্ছে।
  • এই মাধ্যমে আপনি সহজে এবং দ্রুত আপনার টাকা দেশে পাঠাতে পারবেন।
  • দেশে পাঠানো টাকার সাথে আপনি ২.৫% প্রনোদনা পাবেন, ইত্যাদি।

সবচেয়ে বড় কথা হলো, এখানে আপনার টাকা সেইফলি দেশে পৌছে যাবে। আরো বেশ কিছু লেনদেনের মাধ্যম আছে, যারা তুলনামূলক সেইফ নয়। তাদের মধ্যে একটি হলো হুন্ডি। হুন্ডি সম্পর্কে আরো জানতে পড়তে পারেন হুন্ডি কি, হুন্ডির মাধ্যমে টাকা পাঠানো যায় কিভাবে? ইত্যাদি।

বিদেশ থেকে সোনালী ব্যাংকে টাকা পাঠানোর নিয়ম

বিদেশ থেকে সরাসরি সোনালী ব্যাংকে যদি টাকা পাঠাতে চান তবে আপনাকে বিদেশে থাকা কিছু এজেন্ট বা এক্সচেইন্জ হাউজের সাহায্য নিতে হবে। এছাড়াও আপনার কাছে আপনার রিসিভারের কিছু তথ্য থাকা লাগবে, যেমন: ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার, নাম, ইত্যাদি, যার মাধ্যমে আপনি দেশে আপনার প্রিয়জনের নিকট টাকা পাঠাতে পারবেন।

আসুন নিচে দেখে নেয়া যাক কি কি তথ্য আপনার দরকার হবে এবং বিদেশ থেকে দেশে সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা পাঠানোর প্রসেসটি কি।

একনজরে যা যা লাগবে

১. রেমিটেন্স রিসিভারের সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট নাম্বার।
২. রিসিভারের পুরো নাম।
৩. সোনালী ব্যাংকের ব্র্যাঞ্চের নাম।
৪. ব্র্যাঞ্চ কোড।
সোনালী ব্যাংকে রেমিটেন্স টাঠাতে যা যা লাগবে

সোনালী ব্যাংকে রেমিটেন্স পাঠানোর নিয়ম

সরাসরি দেশের বাইরে থেকে দেশে সোনালী ব্যাংকে টাকা বা রেমিটেন্স পাঠাতে হলে যা যা করতে হবে তা নিচে বিস্তারিত ভাবে উল্লেখ করা হলো।

  • প্রথমে আপনাকে আপনার নিকটস্থ এক্সচেইন্জ হাউজে যেতে হবে।
  • সেখানে আপনার দেশে টাকা পাঠানোর ব্যাপারে তাদের জানাতে হবে।
  • তারপর তারা আপনার জন্য ফর্ম পূরণ করবেন।
  • সেখানে আপনার রিসিভারের তথ্য নির্ভুল ভাবে দিন, যাতে পরে কোনো সমস্যায় না পড়তে হয়।
  • ভুল তথ্যের জন্য আপনার লেনদেন হোল্ড হতে পারে। এতে টাকা ফেরত পেলেও সময় নষ্ট হবে। তাই আপনার তথ্য রিচেক করুন।
  • সবকিছু ঠিক থাকলে এবং আপনার টাকা বুঝিয়ে দিলে তারা আপনার টাকা সোনালী ব্যাংকে ট্রান্সফার করে দিবে।

ওয়েস্টার্ণ ইউনিয়ন এমনই একটি এক্সচেইন্জ হাউজ। সেখান থেকে দেশে টাকা পাঠাতে পড়তে পারেন ওয়েস্টার্ন ইউনিয়ন টাকা পাঠানোর নিয়ম এই পোস্টি। পোস্টিতে আরো বিস্তারিত জানতে পারবেন।

বৈধ ভাবে বাংলাদেশ থেকে বিদেশে টাকা পাঠানোর নিয়ম

বিদেশ থেকে সোনালী ব্যাংকে টাকা পাঠানোর খরচ

আপনি যদি বিদেশ থেকে সোনালী ব্যাংকে সরাসরি টাকা পাঠান তবে এর জন্য সোনালী ব্যাংক আপনার কাছ থেকে কোনো খরচ কাটবে না। তবে হ্যাঁ, আপনি সোনালী ব্যাংকে টাকা পাঠাতে যে মাধ্যম বা এক্সচেইন্জ হাউজ ব্যবহার করেছেন, তারা তাদের নির্ধারিত চার্জ আপনার কাছ থেকে কেটে রেখে দিবে।

বিদেশ থেকে দেশে টাকা পাঠানোর এমনই বিভিন্ন পোস্ট পড়তে ভিজিট করতে পারেন রেমিটেন্স এই লিংকে।

বিদেশ থেকে দেশে টাকা পাঠানোর নিয়ম নিয়ে আরো কিছু পোস্ট

১. বিদেশ থেকে ডাচ বাংলা ব্যাংকে টাকা পাঠানোর নিয়ম
২. দুবাই থেকে বাংলাদেশে টাকা পাঠানোর নিয়ম

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।