ঘরে বসে নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম দেখুন

নগদ একাউন্ট বাতিল করার নিয়ম খুজছেন? এখানে এনিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম

আপনার হয়তো নগদ একাউন্টের মালিকানা পরিবর্তন করা দরকার। তাই হয়তো আপনি নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম খুজছেন, যাতে করে আপনার সিমে থাকা অন্য নগদ একাউন্ট বন্ধ করে নতুন করে একটা খুলতে পারেন। আবার এটাও হতে পারে যে আপনি আপনার পার্সোনাল নাম্বার পরিবর্তন করতে চান, তাই একাউন্টও পরিবর্তন করতে চান।

যাই হোক, এই পোস্টে আমরা দেখবো যে এই একাউন্ট বন্ধ করা যায় কিনা এবং বন্ধ করা গেলেও নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পদ্ধতি কি। চলুন তাহলে শুরু করা যাক।

কখন নগদ একাউন্ট বন্ধ করবেন কখন করবেন না

#১.আপনার যদি অ্যাকাউন্ট পরিবর্তন করতে হয়: অনেক সময় দেখা যায় নিজের নাম্বারে অন্য কেউ নগদ একাউন্ট খুলে বসে আছে। হয়তো পূর্বে আপনার দরকার হয় নি তাই এই বিষয়ে আপরি মাথা ঘামান নি। এখন আপনি আপনার নাম্বারে আপনার নগদ একাউন্ট দেখতে চান তবে সেই পুরোনো একাউন্টটি বন্ধ করে দেয়া ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। এই পোস্টের পাশাপাশি নগদ একাউন্টের মালিকানা পরিবর্তন করা নিয়ে আরো জানতে পারেন।
#২.আপনি যদি নাম্বার পরিবর্তন করতে চান: কোনো প্রয়োজনে বা সিম পরিবর্তন করার কারণে অনেক সময় নগদ একাউন্টও হস্তান্তর করার প্রয়োজন পড়ে। যেহেতু এক ব্যাক্তি তার ন্যাশনাল আইডি কার্ড দিয়ে শুধু একটি মাত্র একাউন্টই করতে পারে, যার কারণে এই একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করা অত্যন্ত প্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে।
#৩.সিম হারালে বন্ধ করবেন না: আপনার রকেট একাউন্ট যে নাম্বারে সেই নাম্বারটি যদি কোনো ভাবে হারিয়ে যায় তবে একাউন্ট বন্ধ করার দরকার নেই। আপনি আপনার সিম পূনরায় উত্তোলন করলেই আপনার একাউন্ট আবার চালাতে পারবেন।
#৪.আপনার একাউন্টে যদি টাকা থাকে, বন্ধ করবেন না: আপনার একাউন্টে যদি টাকা থাকে তবে আপনি যদি একাউন্ট বন্ধ করে দেন তাহলে আপনি আপনার টাকা আর ফিরে পাবেন না।
#৫. একাউন্ট লক হলে বন্ধ করতে হবে না: একাউন্ট লক হলে বন্ধ না করেও তা ঠিক করতে পারবেন। কিভাবে করবেন তা জানতে পড়ুন নগদ একাউন্ট লক হলে করনীয়
যেসব কারণে নগদ একাউন্ট বন্ধ করবেন কখন করবেন না।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম

নগদ একাউন্ট দুই ভাবে বন্ধ করতে পারবেন। প্রথমত কাস্টমার কেয়ার ভিজিট করে এবং দ্বিতিয়ত ঘরে বসে কাস্টমার কেয়ারে কল করে। দুটি নিয়মই পর্যায়ক্রমে তুলে ধরা হলো। আপনার নগদ একাউন্টটি বন্ধ করতে হলে কিছু জিনিসের প্রয়োজন হবে। আসুন দেখে নেয়া যাক সেই জিনিস গুলো বা ডকুমেন্টস গুলো কি কি।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করতে কি কি লাগবে?

অ্যাকাউন্টের মালিকানা পরিবর্তনে একাউন্ট বন্ধ করতে যা যা লাগবে

১. এনআইডি কার্ড লাগবে: একাউন্ট যার নামে করা তার ও আপনার আইডি এর কপি সাথে রাখতে হবে এবং চাইলে তা দিতে হবে।
২. পূর্বের একাউন্ট যার নামে তাকে লাগবে: অর্থাৎ রকেটের অফিসে যাওয়ার পূর্বে যার নামে আইডি করা তাকে সঙ্গে করে নিয়ে যেতে হবে।
৩. এক কপি ছবি লাগবে: একাউন্ট যার নামে তার এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি সাথে করে নিয়ে যেতে হবে।
৪. সিম কার্ডটি লাগবে: যে নাম্বার থেকে একাউন্ট পরিবর্তন করতে চান সেই সিম লাগবে।
অ্যাকাউন্ট পরিবর্তন করতে যা যা লাগবে

একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তনে একাউন্ট বন্ধ করতে যা যা লাগবে

  • আপনার আইডি কার্ড লাগবে: আপনার আইডি কার্ড এর কপি সাথে করে নিয়ে যাবেন।
  • এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি লাগবে: আপনার এক কপি ছবি সাথে করে নিয়ে যেতে হবে।
  • সিম কার্ডটি লাগবে: যে নাম্বার থেকে একাউন্ট ডিলিট করতে চান ওই সিমটি লাগবে।

আপনার একাউন্টের নিরাপত্তার জন্যই নগদ মূলত এসকল জিনিস যাচাই বাছাই করে, মালিকানা নিশ্চিত করে, তারপর আপনার একাউন্টের যেকোনো ধরণের পরিবর্তন করার অনুমতি দেয়।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার আগে সতর্কতা

নগদের একাউন্ট যদি বন্ধ করতে হয় তবে আগে এটা নিশ্চিত করুন যে আপনার একাউন্ট বন্ধ করার দরকার আছে কিনা। আর বন্ধ করার আগে অবশ্যই একাউন্টের ব্যালেন্স খালি করে নিন।

কেননা ব্যালেন্স যদি থেকে যায় তবে একাউন্ট বন্ধ করার পর তা আর ফিরে পাওয়া যাবে না। আপনি চাইলে নগদ থেকে ইসলামী ব্যাংকে টাকা ট্রান্সফার দিয়ে একাউন্ট খালি করে ফেলতে পারেন। পরে আবার সেলফিন থেকে নগদে এড মানি করে নিয়ে আসতে পারবেন দরকার হলে।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করতে যেখানে যাবেন ( কাস্টমার কেয়ার )

একাউন্ট বন্ধ করতে আপনাকে যেতে হবে নগদের নিকটস্থ কাস্টসার কেয়ারে। সেখানে গিয়ে আপনি আপনার সমস্যার কথা বললে তারা আপনাকে সাহায্য করবে। যাওয়ার সময় প্রয়োজনিয় ডকুমেন্টস গুলো সাথে করে নিয়ে যান এবং অন্য কোনো ব্যাক্তিকে লাগলে নিয়ে যান। সেখানে কাস্টমার কেয়ার থেকে আপনার যা যা করা দরকার তা তারা করে দিবে।

তারা আপনার কাছ থেকে একাউন্ট বন্ধ করার কি কারণ তা জানতে চাইবে। আপনি তা বুঝিয়ে বলবেন। তারপর একটা আবেদন ফরম পূরণ করে নিবেন স্বাক্ষরসহ এবং এক কপি ছবি সহ, যা পূরনে তারা আপনাকে সাহায্য করবে। এভাবে আপনি সেখানে থাকা কালীন আপনার একাউন্ট তারা কিছু সময় নিয়ে বন্ধ করে ‍দিবে।

আপনার একাউন্ট বন্ধ করার পর যদি অন্য কোনো নাম্বারে আবার একাউন্ট করার দরকার হয়, সেক্ষেত্রেও তারা আপনাকে যথেষ্ট সাহায্য করবে, এবং একাউন্ট খুলে দিবে। একাউন্ট করার পর তা নগদ ইসলামিক একাউন্ট -এ পরিবর্তণ করে নেয়া ভালো।

ঘরে বসে নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম ( কাস্টমার কেয়ারে কল করে )

আপনি যদি চান যে ঘরে বসে আপনার নগদ একাউন্ট বন্ধ করতে, তবে আপনাকে কল করুন নগদের কাস্টমার কেয়ার নাম্বার 16167 এই নাম্বারে। তারপর যা করবেন:

  • নগদ একাউন্ট বন্ধ করতে নগদ কাস্টমার কেয়ার নাম্বার 16167 বা 09609616167 তে কল করার পর আপনার একাউন্ট বন্ধ করতে চাওয়ার বিষয়টি জানান।
  • তারপর কাস্টমার কেয়ার থেকে প্রতিনিধী আপনার বিভিন্ন তথ্য সম্পর্কে জানতে চাইবে। যেমন ধরুন: আপনার একাউন্ট যে এনআইডি দিয়ে খোলা তার নাম্বারটি, একাউন্টের মালিকের নাম, বার্থ ডেইট, আপনার শেষ ট্রান্জেকশন কতো ছিলো তা, ইত্যাদি। এই প্রশ্ন গুলোর উত্তর দিন।
  • আপনার দেয়া সকল তথ্য ঠিক থাকলে নগদ থেকে আপনার একাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হবে এবং তা আপনাকে একটি ম্যাসেজ দেয়ার মাধম্যে নিশ্চিত করা হবে।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পর কি আবার খোলা যাবে?

কাস্টমার কেয়ার থেকে আপনার একাউন্ট বন্ধ করার পর আপনি আর একাউন্ট চালাতে পারবেন না যতক্ষন না আবার নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম মেনে একটি একাউন্ট না খুলছেন। আপনি আবার একটি একাউন্ট খুলতে পারবেন, এতে কোনো সমস্যা হবে না।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম প্রশ্ন এবং উত্তর

ঘরে বসে নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম কি?

আসলে ঘরে বসে নগদ একাউন্ট বন্ধ করা যায় না। নগদ এমন কোনো সুবিধা এখনও চালু করেনি। এর জন্য আপনাকে অবশ্যই নগদের কাস্টমার কেয়ারে যেতে হবে।

নগদ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করা যায় কী?

সরাসরি করা যায় না। এর জন্য আপনাকে আপনার একাউন্ট বন্ধ করতে হবে। তারপর অন্য নাম্বারে একাউন্ট খুলতে হবে।

নগদের মালিকানা পরিবর্তনের সময় কি পূর্বের ব্যাক্তিকে সাথে নিতে হবে?

হ্যাঁ, তাকে ছাড়া আপনার একাউন্ট মালিকানা পরিবর্তন করা হবে না।

একটি এনআইডি কার্ড দিয়ে কয়টি নগদ একাউন্ট খোলা যাবে?

একটি এনআইডি কার্ড দিয়ে একটি নগদ একাউন্ট খোলা যায়।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পর কি আবার খোলা যাবে?

আপনার নগদ একাউন্ট ক্লোজ করার পর আপনি যদি পরে তা আবার খুলতে চান, তবে আপনি তা করতে পারবেন। এতে কোনো ধরণের সমস্যা হবে না।

নগদ নিয়ে আমাদের অন্যান্য পোস্ট গুলো পড়ুন

পিন ভুলে গেলেনগদ একাউন্টের পিন নাম্বার ভুলে গেলে করণীয়
উদ্দ্যোক্তা একাউন্টনগদ উদ্যোক্তা একাউন্ট খোলার নিয়ম
বিদ্যুৎ বিলনগদে বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার নিয়ম
নগদ হ্যাকনগদ একাউন্ট হ্যাক হলে করণীয়
নগদের অন্যান্য পোস্ট গুলো।

হোম পেজে যেতে ক্লিক করুন bankline এ।

ঘরে বসে নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়মটি কেমন লাগলো কমেন্ট করে জানাবেন। আমাদের সাথে যুক্ত থাকতে পারেন ফেসবুক বা আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে। নিচে লিংক পেয়ে যাবেন।

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।