ইতালি থেকে বাংলাদেশে টাকা পাঠানোর নিয়ম

আপনি কি ইতালি থেকে বাংলাদেশে টাকা পাঠানোর নিয়ম খুজছেন? আজকের এই আর্টিকেলে আমি বেশ কিছু ভিন্ন ভিন্ন উপায় সম্পর্কে বলবো যার মাধ্যমে আপনি খুব সহজে ইতালি থেকে বাংলাদেশে টাকা পাঠাতে পারবেন।

ইতালি থেকে বাংলাদেশে টাকা পাঠানোর নিয়ম | money transfer from italy to bangladesh

এখানে আলাদা মাধ্যমে টাকা পাঠানোর নিয়মও আলাদা এবং চার্জও ভিন্ন। দেখা যায় কিছু প্রতিষ্ঠান ব্যাংক টাকা ট্রান্সফার করার জন্য চার্জ করে থাকলেও আবার কিছু প্রতিষ্ঠান আছে যারা কোনো এক্সট্রা চার্জ করে না এই ট্রান্সফার করার জন্য। তবে এখন কোন কোন প্রতিষ্ঠান বিদেশ ( Italy ) থেকে Remittance দেশে পাঠায় তা জানা জরুরি।

এই আর্টিকেলে বাংলাদেশে বহু পরিচিত কিছু প্রতিষ্ঠান এবং এর বাইরেও বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে আপনাকে জানাবো যার মাধ্যমে ইতালি থেকে বাংলাদেশে টাকা পাঠানোর নিয়ম অনুসরণ করে খুব সহজে আপনি বাংলাদেশে টাকা পাঠাতে পারবেন। চলুন তাহলে শুরু করা যাক।

ইতালি থেকে বাংলাদেশে টাকা পাঠানোর মাধ্যমগুলো

বাংলাদেশে ইতালি থেকে টাকা পাঠানোর মাধ্যম হিসেবে কাজ করবে এমন অনেক গুলো প্রতিষ্ঠান আছে। এখানে আমি কিছু প্রতিষ্ঠানের নাম তুলে ধরলাম।

  • RIA
  • Thunes
  • Transferwise
  • WorldRemit LTD. UK
  • TERRAPAY
  • Trans-Fast
  • National Exchange
  • NEC Money UK by NCC
  • Small world
  • MoneyGram
  • Janata Exchange Company
  • TapTap Send
  • Poste Italiane via Western Union
  • First Security Islami Exchange
  • Western Union
  • Skrill
  • Azimo
  • Extrabanca
  • Remitly

এই প্রতিষ্ঠান গুলো কিছু আছে যাদের ট্রান্সফার গ্রহণ করা যাবে ইন্টারনেটের মাধ্যমে, কিছু আছে যারা সরাসরি ব্যাংক ব্রাঞ্চে টাকা পাঠবে এবং সেখান থেকে রিসিভ করা যাবে, আবার কিছু আছে যাদের ট্রান্সফার এজেন্টে কাছ থেকে গ্রহণ করতে হবে।

RIA: এই মাধ্যমে যদি টাকা ইতালি থেকে বাংলাদেশে পাঠানো হয় তবে বাংলাদেশে তাদের এজেন্ট হিসেবে যারা কাজ করছে তাদের কাছ থেকে এই টাকা গ্রহণ করা যাবে। আর এই টাকা ট্রান্সফার হতে এক ঘন্টারও কম সময় লাগবে। এখানে একটি নির্দিষ্ট ফি দরকার হবে এই ট্রান্সফার করার জন্য।

WorldRemit: এই মাধ্যমে টাকা পাঠালে ব্যাংকের মাধ্যমেও রিসিভ করা যাবে আবার এজেন্টের মাধ্যমেও টাকা রিসিভ করা যাবে। তবে ব্যাংকে পাঠালে তা রিসিভ করার জন্য একদিন সময় লাগতে পারে যেখানে এজেন্ট থেকে এক ঘন্টারো কম সময়ে টাকা রিসিভ করা যাবে। এখানে ফি প্রযোজ্য হবে।

National Exchange: এখানেও টাকা পাঠালে ব্যাংকের মাধ্যমেও রিসিভ করা যাবে আবার এজেন্টের মাধ্যমেও টাকা রিসিভ করা যাবে। ব্যাংকে পাঠালে তা রিসিভ করার জন্য দুদিন সময় লাগতে পারে যেখানে এজেন্ট থেকে এক ঘন্টারো কম সময়ে টাকা রিসিভ করা যাবে। চার্জ প্রযোজ্য হবে।

Small world: এখানে এজেন্ট বা ব্যাংকের মাধ্যমেও টাকা রিসিভ করা যাবে। সবচেয়ে ভালো কথা হচ্ছে এখানে আপনি কোনো এক্সট্রা চার্জ ছাড়া টাকা পাঠাতে পারবেন।

MoneyGram: এখানে ব্যাংকের মাধ্যমে পাঠালে আপনার বেশ কিছু দিন সময় লেগে যাবে, কিন্তু এজেন্টের কাছ থেকে আপনি এক ঘন্টারো কম সময়ে রিসিভ করতে পারবেন। আপনি ব্যাংকে ট্রান্সফার করলে এর জন্য চার্জ লাগবে না, কিন্তু এজেন্টের মাধ্যমে টাকা রিসিভ করলে এখানে একটি চার্জ প্রযোজ্য হবে।

Janata Exchange Company: ব্যাংকে ট্রান্সফার করে দিতে একদিন সময় নিবে এবং চার্জ প্রযোজ্য হবে।

TapTap Send: এক ঘন্টারো কম সময়ে কোনো প্রকার এক্সট্রা চার্জ ছাড়া আপনার ওয়ালেটে নিয়ে আসতে পারবেন।

Poste Italiane via Western Union: আপনি এক ঘন্টারও কম সময়ে এজেন্টের মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে টাকা রিসিভ করতে পারবেন। চার্জ প্রযোজ্য হবে এখানে।

First Security Islami Exchange: ব্যাংক এবং এজেন্ট দুই মাধ্যম থেকেই টাকা রিসিভ করতে পারবেন। তবে এটি বেশ কিছু দিন সময় নিতে পারে টাকা ট্রান্সফার হতে এবং চার্জ প্রযোজ্য হবে।

Western Union: এক ঘন্টারো কম সময়ে এজেন্টের কাছ থেকে টাকা রিসিভ করতে পারবেন এবং দুই দিনে ব্যাংক হতে টাকা রিসিভ করতে পারবেন। চার্জ প্রযোজ্য হবে।

Skrill: দুই দিনে ব্যাংক হতে টাকা রিসিভ করতে পারবেন এবং চার্জ প্রযোজ্য হবে।

Azimo: এজেন্টের মাধ্যমে দুই দিনে টাকা রিসিভ করতে পারবেন এবং চার্জ প্রযোজ্য হবে।

Remitly: এক ঘন্টারো কম সময়ে ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা রিসিভ করতে পারবেন এবং চার্জ প্রযোজ্য হবে।

এই তথ্য World bank এর ওয়েব সাইট থেকে সংগ্রহ করা।(1)

ইতালি থেকে বাংলাদেশে টাকা পাঠানোর নিয়ম

সচরাচর প্রতিষ্ঠান গুলোর শাখায় গিয়ে নিজের এবং রিসিভারে কিছু ইনফর্মেশন দিতে হয়। এভাবে তারা আপনার দেশে থাকা রিসিভারের কাছে ইনফর্মেশনের এড্রেস বা একাউন্ট অনুযায়ি টাকা পাঠিয়ে দেয়।

কোনো কোনো মাধ্যমে তা সরাসরি গ্রাহক রিসিভ করতে পারে আবার কোনো কোনো মাধ্যমে সেন্ডার টাকা সেন্ড করার পর একটি রিসিট পায়, যেখান থেকে কিছু ইনফরর্মেশন রিসিভারকে দিতে হয় টাকা রিসিভ করার জন্য।

যেমন ইসলামী ব্যাংকে রেমিটেন্স পাঠানোর নিয়ম টাই উল্লেখ করতে পারি। এখানে টাকা পাঠানোর পর সেলফিন থেকে টাকা রিসিভ করার জন্য রেমিটেন্স পিন সেন্ডারকে টাকা পাঠানোর এজেন্সি থেকে নিয়ে তা রিসিভারকে দিতে হয়।

আবার বিকাশে যদি আপনি টাকা পাঠিয়ে থাকেন তাদের পার্টনার এজেন্সির মাধ্যমে তবে সেখানে কিন্তু এতো ঝামেলা নেই। এখানে সরাসরি আপনার একাউন্টে টাকা ডুকে যাবে। বিকাশে বিদেশ থেকে টাকা পাঠানোর নিয়ম নিয়ে আমাদের একটি পোস্ট আছে আমাদের ”মোবাইল ব্যাংকিং” এর ”বিকাশ” সেকশনে, আরো জানতে সেটা পড়তে পারেন।

বিকাশে যেসকল প্রতিষ্ঠান হতে টাকা পাঠাতে পারবেন

নিচের প্রতিষ্ঠান গুলো বিকাশের সাথে পার্টনারে কাজ করছে। সুতরাং বিদেশ থেকে এদের মাধ্যমে সরাসরি বিকাশে টাকা পাঠাতে পারবেন বাংলাদেশে আপনার প্রিয়জনের কাছে।

  • RIA,
  • Thunes,
  • Transferwise,
  • WorldRemit LTD. UK,
  • TERRAPAY,
  • Trans-Fast,
  • National Exchange,
  • NEC Money UK by NCC,

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশে যেসকল প্রতিষ্ঠান হতে টাকা পাঠাতে পারবেন

এই প্রতিষ্ঠান গুলো থেকে সরাসরি ইসলামী ব্যাংকে ইতালি থেকে বাংলাদেশে টাকা পাঠাতে পারবেন।

  • National Exchange Company
  • First Security Islami Exchange

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।