ডেভিড কার্ড ও ক্রেডিট কার্ডের মধ্যে পার্থক্য

ডেভিড কার্ড ও ক্রেডিট কার্ড দেখতে একই রকম হলেও এদের মধ্যে কিছু পার্থক্য আছে যা এই পোস্টে তুলে ধরা হলো।

ডেভিড কার্ড ও ক্রেডিট কার্ডের মধ্যে পার্থক্য | Difference between credit card and debit card bangla

Debit card এবং Credit card, এদের মধ্যে অবশ্যই কিছু বিশেষ পার্থক্য আছে। বিশেষ করে এই দুটির অর্থ যোগানের খাত সম্পূর্ণ ভিন্ন। সেই সাথে এদের চার্জ ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধাতেও ভিন্নতা রয়েছে।

ডেভিড কার্ড ও ক্রেডিট কার্ডের মধ্যে পার্থক্য থাকলেও এই কার্ড গুলো মূলত কেনা কাটার কাজেই ব্যবহার করা হয়, এবং এই কার্ড গুলোর চাহিদাও দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

যাই হোক, এই পোস্টে আমি আলোচনা করবো এই ডেভিড কার্ড ও ক্রেডিট কার্ডের মধ্যে পার্থক্য গুলো কি কি, আর এদের সুবিধা গুলো কি কি। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

ডেবিট কার্ড ও ক্রেডিট কার্ড কি

ক্রেডিট কার্ড

এটি এমন এক ধরণের প্লাস্টিক কার্ড যা ব্যাংক তাদের গ্রাহকদের ইসু করে এবং কার্ডের বীপরিতে গ্রাহক একটি লিমিট পর্যন্ত অর্থ খরচ করার সুযোগ পায়। এটি ঋণ হিসেবে গ্রাহককে দেয়া হয়। এই অর্থ গ্রাহক তাদের বিভিন্ন প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারে। একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এই অর্থ রিটার্ণ করলে গ্রাহককে কোনো প্রকার সুদ দিতে হয় না।

জেনে নিন কোন ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড ভালো

ডেভিড কার্ড

এটিও একটি প্লাস্টিক কার্ড, অনেকটা ক্রেডিট কার্ডের মতোই, তবে এই ডেভিড কার্ডের বীপরিতে গ্রাহক তাদের নিজেদেরই একাউন্টে থাকা অর্থ খরচ করে থাকে। গ্রাহকের একাউন্টে অর্থ না থাকলে গ্রাহক এই কার্ডটি ব্যবহার করতে পারেনা।

ডেভিড কার্ড ও ক্রেডিট কার্ডের মধ্যে পার্থক্য

ডেভিড কার্ড ও ক্রেডিট কার্ডের মধ্যে মৌলিক পার্থক্য গুলো কি কি তা নিচে পর্যায়ক্রমে তুলে ধরা হলো:

ক্রেডিট কার্ডডেভিড কার্ড
১. এই কার্ড দিয়ে কেনাকাটা করতে টাকা ব্যাংক থেকে ঋণ হিসেবে পাওয়া যায়।১. এই কার্ড দিয়ে কেনাকাটা করতে হলে গ্রাহকের একাউন্টে টাকা থাকতে হবে।
২. ব্যবহারকারীর কাছে অর্থ না থাকলেও ব্যবহার করা যাবে।২. যে কোনো প্রকার খরচের জন্য একাউন্টে টাকা থাকা বাধ্যতামূলক।
৩. এটি ব্যবহারকারীর একাউন্টের সাথে সংযুক্ত থাকে না।৩. এটি ব্যবহারকারীর একাউন্টের সাথে সংযুক্ত হয়ে থাকে।
৪. ক্রেডিট কার্ড মাল্টি কারেন্সির হতে পারে।৪. ডেভিড কার্ডে সাধারণত একটি একটি কারেন্সি (বিডিটি) প্রদান করে থাকে।
৫. ক্রেডিট কার্ডের বীপরিতে ব্যাংক ইন্সুরেন্স সুবিধা প্রদান করে থাকে।৫. ডেভিড কার্ডের বীপরিতে ব্যাংক ইন্সুরেন্স সুবিধা প্রদান করে না।
৬. ক্রেডিট কার্ডে জয়েনিং ফি, প্রসেসিং ফি, লেট পেমেন্ট ফি, বার্ষিক ফি প্রদান করতে হয়।৬. ডেভিড কার্ডে কোনো প্রকার সুদ বা মুনাফা দিতে হয় না।
কারণ ডেভিড কার্ড দিয়ে গ্রাহক নিজের টাকা নিজেই উত্তোলন করে থাকে।
৭. ক্রেডিট কার্ডের গ্রাহকের কাছে কোনো স্টেটম্যান্ট প্রদান করা হয়।৭. ডেভিড কার্ডের গ্রাহকের কাছে স্টেটম্যান্ট প্রদান করা হয় না।
৮. ব্যাংক হিসাবধারী যেকেউ ক্রেডিট কার্ড নিতে পারবেন না।৮. ব্যাংক হিসাবধারী যেকেউ চাইলে ডেভিড কার্ড নিতে পারবেন।
১২টি কাজ যা আপনার ক্রেডিট কার্ড দিয়ে করা উচিত নয়

ক্রেডিট কার্ডের ‍সুবিধা

ক্রেডিট কার্ডগুলি আপনাকে ক্রয়ের ক্ষেত্রে পে করার জন্য অতিরিক্ত সময় দেয়। মাস শেষ হওয়ার পর, আপনি গত ৩০ দিনে করা কেনাকাটার জন্য কতটা খরচ করেছেন তা উল্লেখ করে একটি বিল পাবেন। আপনার ক্রেডিট কার্ড বিল পরিশোধ করতে আপনাকে একটি নির্দিষ্ট সময় দেয়া হবে।

ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারে আপনার একটি ক্রেডিট হিস্ট্রি তৈরি হবে। যখনই আপনি আপনার ক্রেডিট কার্ড দিয়ে কিছু কিনবেন এবং তারপর সময়মতো তা পরিশোধ করবেন, আপনার ক্রেডিট হিস্ট্রিতে তা যুক্ত হবে। আপনার পজেটিভ ক্রেডিট হিস্ট্রি আপনার একটি ভালো ইমেজ তৈরি করবে এবং আপনার ক্রেডিট স্কোর বাড়াতে সাহায্য করবে৷

ক্রেডিট কার্ডের আরো কি কি সুবিধা এবং অসুবিধা আছে দেখুন

ডেভিড কার্ডের ‍সুবিধা

ক্রেডিট কার্ডের পরিবর্তে একটি ডেবিট কার্ড ব্যবহার করা ঋণে পড়ার সম্ভাবনা হ্রাস করার একটি ভাল উপায়। এই পদ্ধতিটি আপনাকে আপনার বাজেটের মধ্যে সিমাবদ্ধ থাকার সুযোগ দেয়। আপনি যা খরচ করেন তা আপনার একাউন্ট থেকে কাটে। তাই আপনার বাড়তি খরচ করার সুযোগ নেই।

আপনার ডেবিট কার্ড ব্যবহার করে এটিএম মেশিন থেকে নগদ তুলতে পারবেন। কিছু খুচরা বিক্রয়ের দোকান থেকে আপনি ক্যাশ ব্যাক অফারও পেতে পারেন।

যেহেতু আপনার ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে আপনি যে কেনাকাটা করেন তার অর্থ সরাসরি আপনার চেকিং অ্যাকাউন্ট থেকে নেওয়া হয়, তাই মাসের শেষে আপনার বিল আসার বিষয়ে কোনো চিন্তা করতে হবে না। এর মানে হল যে আপনাকে সেই বিলে সুদ জমা হওয়ার বিষয়ে চিন্তা করতে হবে না।

ডেভিড কার্ড ও ক্রেডিট কার্ড সম্পর্কিত প্রশ্ন এবং উত্তর

ডেভিড কার্ড ভালো নাকি ক্রেডিট কার্ড ভালো?

ভিন্ন ভিন্ন ব্যাক্তির জন্য ভিন্ন ভিন্ন কার্ড ভালো। অর্থাৎ কারো জন্য যদি ডেভিড কার্ড ভালো হয়, তবে কারো জন্য ক্রেডিট কার্ড ভালো।
কারণ ক্রেডিট কার্ডে অনেক ধরণের অফার আছে, যদি আপনার রেগুলার এক্টিভিটিতে ক্রেডিট কার্ড লাভজনক হয়, তবে এটি ব্যবহার করা ভালো। আর আপনি যদি সময় মতো খরচ করা অর্থ ফেরত দিতে না পারেন, তবে আপনার জন্য ডেভিড কার্ড নেয়াই উত্তম হবে।

বিভিন্ন ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড সম্পর্কে জানুন

১. সুদমুক্ত ইসলামী ব্যাংক খিদমাহ ক্রেডিট কার্ড ফিচার
২. ডাচ বাংলা ব্যাংক ক্রেডিট কার্ড সুবিধা

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।