জনতা ব্যাংক চেক লেখার নিয়ম

আপনি কি জনতা ব্যাংকের একজন গ্রাহক? জনতা ব্যাংকের চেক লেখার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন? এখানে এবিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

জনতা ব্যাংক চেক লেখার নিয়ম

জনতা ব্যাংক চেক লেখার নিয়ম কঠিন কিছু নয়। একটু বুঝে নিলে খুব সহজে আপনি আপনার ব্যাংক চেকটি লিখে ফেলতে পারবেন। তবে ব্যাংকের চেক লেখার নিয়ম মূল চেক লেখার আগে জেনে নেয়া উত্তম। কেননা চেক লিখার নিয়ম বুঝতে না পারলে প্রায় কাটা ছেড়া হয়ে যায়। আর ব্যাংক চেকে কাটা ছেড়া করা একদমই উচিৎ নয়।

আপনি যেন খুব সহজে জনতা ব্যাংকের চেক লেখার নিয়ম টি বুঝতে পারেন তাই এখানে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। এখানে চেকের ছবি সহ ব্যবহার করা হয়েছে এবং তা কিভাবে পূরণ করে তা দেখানো হয়েছে। তবে চেষ্টা করা হবে যেন এই পোস্টে একটি ভিডিও সংযুক্ত করে দেয়া যায়। চলুন তাহলে শুরু করা যাক।

ব্যাংক চেক লেখার আগে প্রয়োজনিয় সতর্কতা

  • লেখার জন্য সুবিধাজনক কোনো জায়গায় চলে যান।
  • চেক লেখার ক্ষেত্রে যেকোনো একটি ভাষা বাংলা অথবা ইংরেজি ব্যবহার করুন।
  • লিখার আগেই কি লিখবেন তা ঠিক করে নিন।
  • কাটা ছেড়া একদমই করবেন না।
  • যদি কোনোভাবে কাটা ছেড়া হয়েও যায় তবে চেষ্টা করবেন একটানে তা কেটে আশে পাশে সুন্দর করে লিখতে।
  • প্রয়োজনে কমা (,) ব্যবহার করুন।

জনতা ব্যাংক চেক লেখার নিয়ম

আপনার জনতা ব্যাংক একাউন্ট থেকে যদি চেকের মাধ্যমে টাকা তুলতে চান তবে আপনাকে যা করতে হবে তা নিচে আমি বিস্তারিত তুলে ধরলাম। আর হ্যাঁ, এটা মনে রাখবেন যে যেকোনো একটি ভাষায় আপনি আপনার চেকটি পূরণ করবেন। বাংলা বা ইংরেজি মিক্স করে ফেলবেন না।

জনতা ব্যাংকের চেক লেখার নিয়ম
জনতা ব্যাংকের চেক লেখার নিয়ম

চেক যেভাবে পূরণ করবেন

#Date বা তারিখ দেয়ার নিয়ম: চেকের ডান পাশে একদম উপরে Date লিখা অপশনের পাশে কিছু খালি ঘর দেখতে পাওয়া যায়। একটু খেয়াল করলে দেখতে পাবেন সেখানে DD MM YYYY এভাবে লিখা আছে।

তারিখ দেয়ার জন্য এখানে DD তে টাকা যেদিন তুলবেন সেদিনের তারিখ, MM এ কত মাস চলছে তা, এবং YYYY তে চলমান বছর লিখতে হবে। উদাহরণ সরুপ 25 09 2023 এভাবে লিখতে পারবেন। বুঝতে সমস্যা হলে উপরে ছবির সাথে মিলিয়ে নিন। আশা করি বুঝে যাবেন।

#Pay to বা টাকা কাকে দিচ্ছেন: আপনার টাকা আপনি মূলত কাকে দিতে চাচ্ছেন তা লিখুন। ধরুন আপনি নিজের টাকা নিজে তুলছেন, তবে শুধু ”Self বা নিজ” লিখে দিলেই হবে। আর যদি এমন হয় যে আপনি আপনার পরিচিত কাউকে দিয়ে টাকা তুলাচ্ছেন বা আপনি তাকে টাকা দিয়েছেন, সে তা তুলে নিবে, তবে তার নাম উল্লেখ করতে হবে।

যেমন ধরুন আপনি রহিম কে টাকা দিয়েছেন। তবে Pay to দিবেন রহিম। আর নিজেই নিজের চেক দিয়ে তুলতে গেলে লিখুন ”নিজ বা Self” এভাবে।

#The sum of taka বা টাকার পরিমাণ: আপনার কাঙ্খিত টাকার পরিমাণটি কথায় লিখুন। বাংলা বা ইংলিশে যে কোনো একটি ভাষায় লিখুন কতো টাকা তুলতে চান তা। ধরুন আপনি দশ হাজার তুলতে চান। তবে লিখুন ”দশ হাজার টাকা মাত্র বা Ten thousand taka only”, এখানে মাত্র কথাটি অবশ্যই লিখবেন।

#TK বা টাকার পরিমাণ সংখ্যায়: The sum of taka এর পাশেই TK লিখা বক্সে আপনার টাকার পরিমাণ অংকে লিখতে হবে। ধরুন আপনি ১০,০০০ টাকা তুলতে চান। তবে লিখুন “১০,০০০/- বা 10,000/-”, যেখানে লিখার শেষে অবশ্যই (/-) এই চিন্হ দিয়ে দিবেন।

এটি দেয়ার কারণ হচ্ছে সতর্কতা। অর্থাৎ আপনি অপনার টাকার পরিমাণের শেষে যদি এই চিন্হ দেন, তবে কেউ আর চাইলেও সেখানে আরেকটি সংখ্যা বসানোর জায়গা পাবে না। এমন হতেও পারে যে কেউ আপনার বসানো টাকার পরিমানের সাথে আরেকটি সংখ্যা বসিয়ে জালিয়াতি করে বাড়তি টাকা তুলে নিবে। তাই সতর্কতা মেনে চলুন।

#Signature বা স্বাক্ষর: একদম শেষে ডান পাশে নিচে আপনার সিগনেচার দিন। যে স্বাক্ষর আপনি আপনার ব্যাংক একাউন্ট খোলার সময় ব্যবহার করেছিলেন, সেই সিগনেচারটি ব্যবহার করুন।

সিগনেচার করার পর চেকের পিছনের সাইটে আরো দুটি সিগনেচার করুন। সেই সাথে আপনার মোবাইল নাম্বার যেটি আপনি ব্যাংকে দিয়েছেন, সেই মোবাইল নাম্বারটি লিখে দিন।

আপনার একাউন্ট থেকে টাকা তুলার পর আর কতো টাকা আছে তা চেক করতে পড়ুন জনতা ব্যাংক একাউন্ট চেক করার নিয়ম এই পোস্টি। এখানে আপনি অনলাইনে বা অফলাইনে কিভাবে একাউন্ট চেক করতে পারবেন তা দেখানো হয়েছে।

শেষকথা

চেক লেখার আগে উপরে উল্লেখিত সতর্কতা গুলো অবশ্যই মেনে চলবেন। চেকের মধ্যে থাকা গ্রাহকের অংশ, অর্থাৎ ছোট অংশটি, আপনি লিখুন বা না লিখুন কোনো সমস্যা নাই। তবে লিখাটা ভালো। ব্যাংকের অংশের মূল চেক যা উপরে উল্লেখ করেছি, তা সতর্কতার সহিত পূরণ করুন, যেন ভূল না হয়ে যায়।

কোথাও ভুল হলে সেখানে বার বার কলম ঘষার চেষ্টা একেবারেই করবেন না। চেষ্টা করুন একটানে তা কেটে আশে পাশে তা লিখে দিতে। সবচেয়ে ভালো হয় প্রথমেই সব ঠিক করে নিন যে কোথায় কি লিখবেন। এতে করে ভুল হওয়ার সম্ভাবনা অনেকাংশে কমে যায়। আর যখন টাকার এমাউন্ট অংকে লিখবেন, তখন কমা দিতে ভুলবেন না।

চেক লেখা নিয়ে আরো পোস্ট

সোনালী ব্যাংক চেকসোনালী ব্যাংকের চেক লেখার নিয়ম
ইসলামী ব্যাংক চেকইসলামী ব্যাংকের চেক লেখার নিয়ম
চেক লেখার নিয়ম।

হোম পেজে যেতে ক্লিক করুন bankline এ।

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।