ব্র্যাক ব্যাংক লোন পদ্ধতি ও সুবিধা

আপনার হয়তো একটি লোন দরকার, যার জন্য আপনি ব্র্যাক ব্যাংক লোন পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে চান। এই পোস্টে আপনার জন্য ব্র্যাক ব্যাংক লোন নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে যা আপনার কাজে আসতে পারে।

ব্র্যাক ব্যাংক লোন পদ্ধতি | brac bank loan system bangla

বাংলাদেশে বেসরকারী ব্যাংক গুলোর মধ্যে ব্র্যাক ব্যাংক একটি যারা বর্তমানে মুটামুটি কম ইন্টারেস্টে লোন তাদের গ্রাহকদরে দিয়ে থাকে। তাই আপনি লোন নেয়ার ক্ষেত্রে ব্র্যাক ব্যাংককে চয়েজে রাখতে পারেন।

এই পোস্টে ব্র্যাক ব্যাংক লোন সিস্টেম বা Brac bank loan ‍system এ আপনি জানতে পারবেন তাদের কয়েকটি জনপ্রিয় লোন সার্ভিস সম্পর্কে। সেই সাথে এই লোনের সুবিধা গুলো কি কি এবং লোন পেতে কি কি ডকুমেন্টস দরকার হবে তাও থাকছে এই পোস্টে।

এছাড়াও এই লোনের ইন্টারেস্ট রেট কেমন হবে তার ধারনা দেয়া সহ আপনার মনে থাকা সম্ভাব্য কিছু প্রশ্নের উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো এই পোস্টের একদম শেষে। চলুন তাহলে শুরু করি।

ব্র্যাক ব্যাংক লোন

ব্র্যাক ব্যাংকের অনেক গুলো লোন সার্ভিসের মধ্যে কয়েকটি লোন সার্ভিসের নাম হলো:

  • ব্র্যাক ব্যাংক পার্সোনাল লোন
  • ব্র্যাক ব্যাংক হোম লোন
  • ব্র্যাক ব্যাংক অটো লোন
  • ব্র্যাক ব্যাংক কার লোন
  • ব্র্যাক ব্যাংক স্যালারি লোন

যেকোনো লোন পাওয়ার জন্য ব্র্যাক ব্যাংকে আপনার একটি একাউন্ট থাকতে হবে। আপনাকে তাদের একজন গ্রাহক হতে হবে লোন পাওয়ার জন্য। আর না থাকলে ব্র্যাক ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম টি জেনে নিন লিংক থেকে।

ব্র্যাক ব্যাংক পার্সোনাল লোন

অনেক সময় দেখা যায় আপনার হঠাৎ টাকার প্রয়োজন হচ্ছে। আপনি কোনো বিশেষ কাজ সম্পাদন করতে টাকার জন্য আটকে আছেন। এই সময় আপনি ব্র্যাক ব্যাংকে আপনার জন্য একটি লোনের আবেদন করতে পারবেন।

ব্র্যাক ব্যাংকের পার্সোনাল লোন মূলত বিবাহ, অবকাশ যাপন, চিকিৎসা, গৃহস্থালী সামগ্রী, শিক্ষা, গ্যাজেট এবং আনুষাঙ্গিক সহ বিভিন্ন খরচের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে।

পার্সোনাল লোনের সুবিধা

পার্সোনাল লোনের বেশ কিছু সুবিধা আছে। এর সুবিধা গুলো নিচে তুলে ধরা হলো।

  • সর্বোচ্চ ঋণের পরিমাণ ২০ লাখ টাকা,
  • কোন জামানত বা নগদ সিকিউরিটিজ প্রয়োজন নেই,
  • ঋণ পরিশোধের ক্ষেত্রে ১২ মাস থেকে ৬০ মাস সময়ের মধ্যে ফ্লেক্সিবল EMI সুবিধা,
  • লোন টপ-আপ এবং টেকওভার সুবিধা।

লোন পাওয়ার যোগ্যতা

যে কেউ এই লোন পাওয়ার জন্য যোগ্য হবেন না। এখানে ব্যাংক কিছু শর্ত সেট করে দিয়েছে। আসুন দেখে নেই এই লোন পাওয়ার জন্য যোগ্যতা কি কি থাকতে হবে।

  • ঋণ পেতে বয়স সিমা হতে হবে সর্বনিম্ন ২৫ বছর এবং সর্বোচ্চ ৬৫ বছর,
  • ন্যূনতম মাসিক আয় থাকতে হবে ৩০,০০০ টাকা,
  • চাকরির ক্ষেত্রে ন্যূনতম মোট কাজের অভিজ্ঞতা ৬ মাসের থাকতে হবে,
  • ব্যবসার ক্ষেত্রে একই ব্যবসায় ন্যূনতম 3 বছরের ব্যবসার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

প্রয়োজনিয় ডকুমেন্টস

পার্সোনাল লোন এর জন্য আবেদন করার আগে আপনার যে সকল কাগজপত্র সংগ্রহ করতে হবে তা হল:

  • ঋণ আবেদনকারী এবং গ্যারান্টার উভয়ের NID এর ফটোকপি,
  • ঋণের আবেদনকারী এবং গ্যারান্টার উভয়ের একটি পাসপোর্ট সাইজের ছবি,
  • ঋণের আবেদনকারী এবং গ্যারান্টার উভয়ের ভিজিটিং কার্ড বা অফিস আইডির একটি ফটোকপি (যদি প্রযোজ্য হয়),
  • ৫ লাখ টাকার বেশি ঋণের জন্য ই-টিনের ফটোকপির ফটোকপি,
  • সর্বশেষ ইউটিলিটি বিলের একটি ফটোকপি,
  • বেতন বা মাসিক আয়ের একটি স্টেটমেন্ট (চাকরিজীবী এবং ব্যবসায়ি উভয় ক্ষেত্রে),
  • চাকরির ক্ষেত্রে শেষ ৬ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট।
  • ব্যবসার ক্ষেত্রে শেষ ১২ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট।

ব্র্যাক ব্যাংক হোম লোন

আপনি কি একটি বাড়ি নির্মানের ব্যাপারে ভাবছেন? ব্র্যাক ব্যাংক আপনার নির্মাণাধীন / আধা-সম্পূর্ণ / সম্পূর্ণ / সেকেন্ড হ্যান্ড বাড়ির অ্যাপার্টমেন্ট কেনার জন্য অর্থায়ন করবে ব্র্যাক ব্যাংক হোম লোন সেবার মাধ্যমে।

অনেকে হাউজিং বিজনেস এর সাথে যুক্ত হওয়ার ব্যাপারে ভাবছেন। হয়তো অর্থের সল্পতার কারণে হয়ে উঠছে না। তারাও এই ব্যাংক থেকে হোম লোন নিতে আবেদন করতে পারবেন এবং আপনার বাড়ি তৈরিতে খরচ করতে পারবেন।

ব্র্যাক ব্যাংক হোম লোন | Brac bank home loan
ব্র্যাক ব্যাংক হোম লোন

লোন পাওয়ার যোগ্যতা

এই লোন পেতে হলে আপনাকে নির্দিষ্ট যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। আপনার কি কি যোগ্যতা থাকা বাধ্যতা মূলক তা নিচে দেয়া হলো।

  • বয়স সিমা হতে হবে সর্বনিম্ন ২৫ বছর এবং সর্বোচ্চ ৬৫ বছর,
  • চাকরির ক্ষেত্রে ৩ বছরের অভিঙ্গতা এবং মাসিক আয় থাকতে হবে ২৫,০০০ টাকা,
  • ব্যবসার ক্ষেত্রে ৩ বছরের অভিঙ্গতা এবং ৩০,০০০ টাকা মাসিক আয়।

প্রয়োজনিয় ডকুমেন্টস

হোম লোনের জন্য কিছু নির্দিষ্ট কাগজপত্র দরকার হবে। আবেদনের জন্য কি কি ডকুমেন্টস দরকার হবে তা নিচে উল্লেখ করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ ১ বছরের ব্যক্তিগত ব্যাংক স্টেটমেন্ট,
  • সর্বশেষ ট্যাক্স ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট / করের রিটার্ন রসিদ,
  • জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি,
  • গৃহ ঋণের জন্য চিঠি/ বরাদ্দ চুক্তি/ বাইনা দলিল,
  • হোম ক্রেডিট / টেক ওভার লোনের জন্য নিবন্ধিত মালিকানা দলিল,
  • হোম ক্রেডিট ঋণের জন্য মূল্য উদ্ধৃতি,
  • সর্বশেষ ১ বছরের বেতন হিসাব বিবরণী,
  • ব্যবসার ক্ষেত্রে শেষ ৩ বছরের ব্যাংক স্টেটমেন্ট।

হোম লোন সম্পর্কে আরো জানতে পড়ুন ব্র্যাক ব্যাংক হোম লোন এই পোস্টেটি।

ব্র্যাক ব্যাংক অটো লোন

আপনার ব্যাক্তিগত যে কোনো কাজের জন্য আপনি ব্র্যাক ব্যাংকে অটো লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আসুন দেখি এই লোনের সুবিধা এবং কি কি ডকুমেন্টস দরকার তা।

অটো লোনের সুবিধা

ব্যাক্তিগত যে কোনো কাজের জন্য অটো লোনের কিছু সুবিধা আছে। সুবিধা গুলো হলো:

  • প্রায় বিশ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন পাওয়া যাবে।
  • এই ঋণের সময়কাল হবে পাঁচ বছর।
  • সুদের হার ১৫ থেকে ১৬ শতাংশ হয়।

লোন পাওয়ার শর্ত

এই লোনের জন্য বেশ কিছু শর্ত ব্যাংক আবেদন কারীদের জন্য বেঁধে দিয়েছে। শর্ত গুলো হলো:

  • মাসিক ২৫ হাজার টাকা ইনকাম থাকতে হবে চাকরির ক্ষেত্রে,
  • ব্যবসার ক্ষেত্রে, ৩৫ হাজার টাকা উপার্জনক্ষম ব্যবসায়ী, স্বনির্ভর ও জমির মালিকরা ব্রাক ব্যাংকে অটো লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন,
  • বয়সসীমা ২১ থেকে ৬৫ বছর,
  • গত এক বছরের ব্যাংক স্টেটমেন্ট,
  • গাড়ির মূল্য বিবরণী জমা দিতে হবে,
  • ব্যক্তিগত টিন সার্টিফিকেট জমা দিতে হবে,
  • বেতনের রসিদ জমা দিতে হবে,
  • ট্রেড লাইসেন্স (ব্যবসায়ীর জন্য) জমা দিতে হবে,
  • মেমোরেন্ডাম অফ আর্টিকেল জমা দিতে হবে।

প্রয়োজনিয় ডকুমেন্টস

যেসকল কাগজপত্র এই লোনের জন্য দরকার হবে তা নিচে উল্লেখ করা হলো।

  • এনআইডি কার্ডের ফটোকপি,
  • পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি ১ কপি,
  • টিন সার্টিফিকেট,
  • বেতনের রসিদ,
  • ব্যবসায়ি হলে ট্রেড লাইসেন্স,
  • মেমোরেন্ডাম অফ আর্টিকেল,
  • বিগত এক বছরের ব্যাংক স্টেটম্যান্ট, ইত্যাদি।

ব্র্যাক ব্যাংক কার লোন

ব্র্যাক ব্যাংক কার লোন দিয়ে যারা গাড়ি কিনার ব্যাপারে ভাবছেন তারা গাড়ি কিনতে পারবেন। নতুন গাড়ি ও রিকন্ডিশন্ড গাড়ি কিনতে ব্র্যাক ব্যাংক অর্থায়ন করবে এই লোনের আন্ডারে।

ব্র্যাক ব্যাংক কার লোন | Brac bank car loan
ব্র্যাক ব্যাংক কার লোন

কার লোনের সুবিধা

এই লোনের আন্ডারে আবেদনকারী একটি ভালো এমাউন্টের লোন পেতে পারেন। এছাড়া আর কি কি সুবিধা আছে এই কার লোনের তা নিচে উল্লেখ করা হলো।

  • কার কেনার জন্য আপনি ব্র্যাক ব্যাংকের কার লোনের আন্ডারে সর্বোচ্চ চল্লিশ লক্ষ টাকা লোন পাবেন।
  • লোন পরিষোধ করার জন্য ১২ থেকে ৬০ মাস সময় পাওয়া যাবে।
  • গাড়ির দাম যদি অনেক বেশি হয় তবে ব্র্যাক ব্যাংক ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ব্যায় বহন করবে।

প্রয়োজনিয় ডকুমেন্টস

অন্যান্য ব্যাংকের মতো এখানেও আপনার কিছু কমন ডকুমেন্টস দরকার হবে। চলুন দেখে নেয়া যাক কি কি ডকুমেন্টস এখানে আপনার দরকার হবে।

  • NID এর ফটো কপি।
  • পাসপোর্ট সাইজ ছবি রঙ্গিন।
  • গ্রাহকের একবছরের ব্যাংক হিসাব
    ট্রেড লাইসেন্স।

ব্র্যাক ব্যাংক স্যালারি লোন

আপনার হয়তো সামনের একমাসের বা দুই মাসের বেতন সময়ের আগেই পেয়ে গেলে ভালো হতো। আপনি ব্র্যাক ব্যাংকের স্যালারি লোন থেকে আপনার স্যালারি আগেই পেতে পারবেন।

আপনি যদি বাংলাদেশে কর্মরত একজন বেতনভোগী ব্যক্তি হন তবে এই লোন আপনার জন্য। কারণ ব্র্যাক ব্যাংকের স্যালারি লোনটি শুধুমাত্র আপনাকে মাথায় রেখে ডিজাইন করা হয়েছে।

Brac bank salary loan | ব্র্যাক ব্যাংক স্যালারি লোন
ব্র্যাক ব্যাংক স্যালারি লোন

স্যালারি লোনের সুবিধা

স্যালারি লোনের কিছু সুবিধা আছে। কি কি সুবিধা আছে তা নিচে উল্লেখ করা হলো।

  • পরবর্তি ১৫ মাসের বেতন পর্যন্ত একসাথে তুলতে পারবেন।
  • ১ থেকে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আপনি লোন নিতে পারবেন।
  • ঋণ পরিষোধ করার জন্য ১ থেকে ৫ বছর সময় পাবেন।

লোন পাওয়ার শর্ত

  • সর্বোনিন্ম ২৩ বছর থেকে সর্বোচ্চ ৬০ বছর হতে হতে হবে।
  • মাসে সর্বোনিন্ম ১২ হাজার টাকা স্যালারি হতে হবে।

প্রয়োজনিয় ডকুমেন্টস

এই লোনের জন্য যেসকল কাগজপত্র দরকার হবে তা হলো:

  • শেষ ৬ মাসের ব্যাংক স্টেটম্যান্ট,
  • শেষ যে মাসে বেতন পেয়েছেন তার স্লিপ,
  • ন্যাশনাল আইডি কার্ড এর ফটোকপি।

ব্র্যাক ব্যাংক লোন সম্পর্কিত প্রশ্ন এবং উত্তর

ব্র্যাক ব্যাংকের পার্সোনাল লোন পেতে বয়স কতো হতে হবে?

পার্সোনাল লোনের জন্য সর্বোনিন্ম ২৫ বছর হতে হবে।

ব্র্যাক ব্যাংকের অটো লোনে সর্বোচ্চ কতো টাকা পাওয়া যায়?

সর্বোচ্চ বিশ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন আপনি অটো লোনের আন্ডারে পাবেন।

হোম লোন পেতে কতো টাকা মাসিক বেতন বা উপার্জন থাকতে হবে?

ব্যবসার ক্ষেত্রে মাসে ৩০,০০০ টাকা এবং চাকরির ক্ষেত্রে মাসে ২৫,০০০ টাকা মাসিক বেতন থাকতে হবে।

ব্র্যাক ব্যাংক স্যালারি লোন পেতে কতো টাকা মাসিক বেতন হতে হবে?

মাসে সর্বোনিন্ম ১২,০০০ টাকা মাসিক বেতন হতে হবে।

ব্র্যাক ব্যাংক অটো লোনের ক্ষেত্রে মাসিক কতো টাকা বেতন বা উপার্জন থাকতে হবে?

চাকরির ক্ষেত্রে মাসিক বেতন হতে হবে ২৫,০০০ টাকা এবং ব্যবসার ক্ষেত্রে মাসিক উপার্জন হতে হবে ৩৫,০০০ টাকা।

অন্য ব্যাংকের লোন সম্পর্কে জানুন

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।